২০১৭ সালের সেরা ব্লগিং প্ল্যাটফর্ম কিভাবে চয়ন করবেন (in bengali)

animeshdas.in/blog
Share if you love

ব্লগিং প্ল্যাটফর্ম কিভাবে চয়ন করবেন

আপনার নিজের ব্লগ শুরু করার জন্য আপনি আবার চেষ্টা করছেন, কিন্তু কীভাবে সেরা ব্লগিং প্ল্যাটফর্ম চয়ন করতে পারেন তা বের করতে পারেন না? এটি একটি কঠিন পছন্দ, কারণ সেখানে বিভিন্ন ব্লগিং প্ল্যাটফর্ম আছে। আপনি কিভাবে খুঁজে পাবেন কোনটি আপনার জন্য সঠিক? এই পোস্টটিতে ,  আপনাকে সর্বাধিক জনপ্রিয় বিকল্পগুলির প্রতিদ্বন্দ্বী ও প্রতিদ্বন্দ্বিতাগুলির উপর ভিত্তি করে সেরা ব্লগিং প্ল্যাটফর্ম চয়ন করতে সহায়তা করব।

এখানে এই ব্লগিং প্ল্যাটফর্মগুলি আমরা এই নিবন্ধে তুলনা করব। আপনি যদি একটি নির্দিষ্ট প্ল্যাটফর্মে আগ্রহী হন, তাহলে আপনি নিবন্ধটিতে এগিয়ে যেতে লিঙ্কটি ক্লিক করতে পারেন।

  1. WordPress.org
  2. WordPress.com
  3. Blogger

সেরা ব্লগিং প্লাটফর্ম নির্বাচন – কিসের জন্য দেখুন?

ব্লগ শুরু করার হিসাবে, আপনি একটি ব্লগিং প্ল্যাটফর্ম বেছে নিন যেটা সেট আপ করা সহজ, এবং কোন কোডিং দক্ষতা প্রয়োজন হবে না।আপনি কি ধরনের ব্লগ তৈরি করতে চান তা নিয়েও ভাবতে হবে, এখন এবং ভবিষ্যতে।

আপনার ব্লগএর ভিসিটর যত বাড়বে, আপনি আপনার সাইটের কিছু কিছু পরিবর্তন করতে হবে ভিসিটরদের ধরে রাখার জন্য. এর অর্থ হল এটি একটি ব্লগিং প্ল্যাটফর্ম চয়ন করা গুরুত্বপূর্ণ যা খুব ই সাধারণ , যেখানে আপনার ভিসিটর রা সহজেই খুঁজে পেতে পারে ওদের সার্চ করা বিষয় গুলি.

ভুল প্ল্যাটফর্ম বেছে নিলে আপনাকে পরবর্তী সময়ে হয়তো অনেক সমস্যা হতে পারে. যদি ও এখন আপনি অর্থের জন্য করছেন না তবে প্রথম থেকে সঠিক প্ল্যাটফর্ম বেছে নেয়া ই স্মার্ট সিদ্ধান্ত .

1.Wordpress :

wordpress for blogWordPress.org বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় ব্লগিং সফ্টওয়্যার।  কিন্তু  WordPress.org , WordPress.com দুটি আলাদা আলাদা প্ল্যাটফর্ম . দুটো আপাত দৃষ্টি তে এক মনে হলেও দুটির মধ্যে রয়েছে অনেক পার্থক্য .
* দেখে নিন WordPress.org এবং  WordPress.comএর মধ্যে পার্থক্য >>

  • কি কি সুবিধা পাবেন wordpress.org তে :

  • আপনার সাইট এর উপর পুরো নিয়ন্ত্রণ আপনার হাতে ই থাকে.
  • আপনি আপনার ব্লগ টিকে নিজের মতো করে সাজিয়ে তুলতে পারেন বিভিন্ন বিভাগ যেমন “ফোরাম” “অনলাইন ই-কমার্স সাইট” ইত্যাদি .
  • প্রচুর ফ্রি এবং প্রিমিয়াম থিম দ্বারা আপনি আপনার সাইট টি সাজিয়ে তুলতে পারেন.
  • আপনি 45,000 এরও বেশি বিনামূল্যের প্লাগইনগুলির ব্যবহার করতে পারেন। এই প্লাগইনগুলি আপনার ওয়ার্ডপ্রেস ব্লগগুলির জন্য অ্যাপ্লিকেশনগুলির মত, যা আপনাকে সব ধরণের নতুন বৈশিষ্ট্যগুলি যোগ করতে সহায়তা করে।
  • wordpress হল সার্চ ইঞ্জিন সহযোগী.

wordpress.org এর কিছু অসুবিধা :

  • আপনার নিজের ওয়েবসাইট পরিচালনা করা শিখতে হবে.
  • আপনাকে নিজের ব্যাকআপ এবং নিরাপত্তা পরিচালনা করতে হবে।

2. WordPress.com :

WordPress.com একটি ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েব সাইট দ্বারা পরিচালিত একটি ব্লগ হোস্টিং পরিষেবা।ওয়ার্ডপ্রেস এর ওয়েবসাইটটি বিনামূল্যে বেসিক ব্লগ পরিষেবা প্রদান করে .

  • কি কি সুবিধা পাবেন wordpress.com এ :

    1. কোন সেটআপ প্রয়োজন নেই.

 

2. ব্যবহার এবং পরিচালনা করতে সহজ.

wordpress.com এর কিছু অসুবিধা :

  •  এটি একটি সীমিত পরিষেবা.
  • আপনার সাইট আপনার অধীনে নয়.

3.Blooger :

blogger.com

ব্লগার একটি ফ্রি ব্লগ হোস্টিং পরিষেবা। ২০০৩ সালে গুগল এটিকে নিজের অধীনে নিয়ে নেয়. এটি একটি সহজ এবং লাভজনক প্ল্যাটফর্ম নতুন ব্লগার দের জন্য.

কি কি সুবিধা পাবেন Blogger.com এ :

  • ব্লগার বিনামূল্যে।
  • কোনও প্রযুক্তিগত দক্ষতা ছাড়াই এটি ব্যবহার করা এবং পরিচালনা করা সহজ।
  • Google এর শক্তসমর্থ সুরক্ষিত প্ল্যাটফর্ম এবং নির্ভরযোগ্যতা এর যোগ সুবিধা আছে।

Blogger.com এর কিছু অসুবিধা :

  • blooger.com এ টুলস এর ব্যবহার সীমিত.
  • আপনার সাইট টিকে সাজিয়ে তুলার জন্য ও সীমিত জিনিস রয়েছে.
  • নতুন ফিচার্স এবং আপডেট খুব কম পাবেন.

আমি wordpress.org ব্যবহার করতে ই সবাইকে পরামর্শ দেব.এটি শক্তিশালী, ব্যবহার করা সহজ, সাশ্রয়ী মূল্যের. কিন্তু আপনি যদি বেসিক থেকে শুরু করতে চান তাহলে আপনি blogger.com ও ব্যবহার করতে পারেন.
আশা করি আপনারা এই পোস্টটিতে অনেক গুর্রুতপূর্ণ বিষয় জানতে পেরেছেন. সাথে থাকুন সাবস্ক্রাইব করে ব্লগ্গিং সম্পর্কে আরো  বিশদ ভাবে জানার জন্যে.

 

*আপনারা আছেন অনিমেষ ঋষি দাস এর “TechNBlog” সাইট এ. ধন্যবাদ .

Share if you love